সর্বশেষ সংবাদ:
জগন্নাথপুরে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয় জগন্নথপুরে ডাকাতি ও মাদক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেফতার জগন্নাথপুরে মাসুম আহমদের হত্যাকারীদের অতিসত্ব গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও স্ত্রী মেলানিয়া কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ফ্রান্সে জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় আইফেল টাওয়ার! পাকিস্তান- ধর্ষণ-যৌন অপরাধের সাজা নপুংসকতা বা ফাঁসি, দাবি ইমরানের ক্যালিফোর্নিয়ার আরও ভয়ংকর দাবানল, দৈনিক আগুন ছড়াচ্ছে ২৫ মাইল! মৃত ১১ আরও এক জন নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গকে পিছন থেকে গুলি করল মার্কিন পুলিস! বিশ্বে ৪৩টি দেশের রাষ্ট্রধর্ম মধ্যে,২৮টি দেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ! করোনাভাইরাস: প্যারিস ও মার্সেইলে ‘ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল’ ঘোষণা করেছে ফ্রান্স !

বিশ্বনাথে চার তরুণের কৃষিতে সফলতা

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি ::লন্ডনের প্রবাস জীবনের হাতছানি উপেক্ষা করে দেশেই কৃষিতে সাফল্য এনেছেন সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার চার তরুণ। ধান, ক্যাপসিকাম, নাগামরিচ, ব্রকলি, বেগুন, টমেটো, লাউসহ বিভিন্ন জাতের সবজির সফল চাষি এখন তারা।

সাফল্যের স্বীকৃতি ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক’ও পেয়েছেন একজন। কম খরচে বেশি লাভ হওয়ায় তাদের পথ ধরেই কৃষিতে ঝুঁকছেন শিক্ষিত তরুণরা। জানা গেছে, উপজেলার রামধানা গ্রামের বেলাল আহমদ ইমরান (৩২) পড়ালেখা শেষে কৃষিতে মনোযোগ দেন। প্রথমে বাড়ির পুকুরে শিং-মাগুর চাষে সফল হন তিনি। এ জন্য ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক’ দেন। পরে আরও দ্বিগুণ উৎসাহে সাফল্য আনেন ক্যাপসিকাম ও নাগামরিচ চাষেও। নিজে সফল হয়ে থেমে থাকেননি। সফল্যের এ পথে নিয়ে আসেন তার তিন বন্ধুকেও। তারা হলেন উপজেলার আলাপুর গ্রামের জাবের হোসেন (২৯), বিশ্বনাথের গাঁও’র কয়ছর আহমদ (২৮) ও দৌলতপুরের নিজাম উদ্দিন (৩০)।
বেলালের সার্বিক সহযোগিতায় তারা এখন সফল সবজি চাষি।
সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, বেলাল এবার তার আধা বিঘা জমিতে ২ হাজার ৩০০ ক্যাপসিকাম রোপণ করেছেন। এ পর্যন্ত ১ লাখ ৭০ হাজার টাকার ক্যাপসিকাম বিক্রি করেছেন তিনি। পাশাপাশি তার খেতে রয়েছে ৯ হাজার নাগামরিচের চারা। এ থেকে খরচ বাদে ৩ লাখ টাকা আয়ের টার্গেট রয়েছে তার। আলাপুর গ্রামের জাবের ৮ বিঘা জমিতে চাষ করেছেন ক্যাপসিকাম, নাগামরিচ, ব্রকলি, বেগুন, টমেটো ও লাউ। বিশ্বনাথের গাঁও গ্রামে কয়ছর ২১ শতাংশ জমিতে করেছেন ক্যাপসিকাম। দৌলতপুর গ্রামের নিজাম চাষ করেছেন ৪২৫ টি নাগামরিচের চারা। বেলালের কৃষক বন্ধুরা জানালেন, বেলাল ভাই আমাদের পথ দেখিয়েছেন। তার পরামর্শ ও সহযোগিতায় আমরা সবজি চাষ শুরু করি। এ পর্যন্ত খরচ উঠে আমরা লাভেই রয়েছি।
বেলাল আহমদ ইমরান সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের লক্ষ্য আগামী ৫ বছরের মধ্যে ১০০ ভালো কৃষক তৈরি করা; যারা কৃষি কাজ করে বাণিজ্যিকভাবে সফল হবে। এ বিষয়ে কথা হলে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যান তত্ত্ব বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. শহীদুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের তরুণরাও যে আধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে কৃষিতে ঝুঁকছে, এটা আশার খবর। সিলেট অঞ্চলে বেড়ে যাচ্ছে সবজির চাষ। কৃষিতে ভালো করছেন ওই চার তরুণ। তাদের পথ ধরে অন্য যুবকরাও এগিয়ে এলে কৃষিতে সমৃদ্ধ হবে দেশ।

Advertisement
সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

More News Of This Category



Our Facebook Page


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু