সর্বশেষ সংবাদ:
জগন্নাথপুরে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয় জগন্নথপুরে ডাকাতি ও মাদক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেফতার জগন্নাথপুরে মাসুম আহমদের হত্যাকারীদের অতিসত্ব গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও স্ত্রী মেলানিয়া কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ফ্রান্সে জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় আইফেল টাওয়ার! পাকিস্তান- ধর্ষণ-যৌন অপরাধের সাজা নপুংসকতা বা ফাঁসি, দাবি ইমরানের ক্যালিফোর্নিয়ার আরও ভয়ংকর দাবানল, দৈনিক আগুন ছড়াচ্ছে ২৫ মাইল! মৃত ১১ আরও এক জন নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গকে পিছন থেকে গুলি করল মার্কিন পুলিস! বিশ্বে ৪৩টি দেশের রাষ্ট্রধর্ম মধ্যে,২৮টি দেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ! করোনাভাইরাস: প্যারিস ও মার্সেইলে ‘ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল’ ঘোষণা করেছে ফ্রান্স !

করোনা ভাইরাসঃ বাংলাদেশ কি আমেরিকার পথে হাঁটছে?


খবরে শোনা যায়, করোনায় নতুন কেউ আক্রান্ত হননি, আসলে তা কিভাবে বলছেন? তারা কতজনকে পরীক্ষা করছেন? অধিকাংশ সন্দেহজনকেই তো পরীক্ষা করা হচ্ছে না৷ আপনি পরীক্ষা না করলে কিভাবে বুঝবেন আক্রান্ত হয়নি? এখন প্রতিদিন কমপক্ষে ৫০০ মানুষকে পরীক্ষা করা দরকার৷ কিন্তু পরীক্ষা করা হচ্ছে ৭০-৮০ জনকে৷ তাহলে তো বলা যায় পরীক্ষা না করে করোনা গোপন করা হচ্ছে৷’’

অধিকাংশ বিশেষজ্ঞের মত, আক্রান্ত এক ব্যক্তি গড়ে আড়াই জনের শরীরে এই ভাইরাস ছড়িয়ে দিতে পারে। তাতে সংক্রমণের সংখ্যা ৬০ থেকে ৮০ শতাংশ হওয়ার কথা। তবে সে ক্ষেত্রে মৃত্যুর সংখ্যা খুবই কম বলেই ধরে নেয়া হচ্ছে।

Advertisement

যখন এক মাসেরও কম সময়ে পৃথিবীর অনেক দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাসটি। আক্রান্তের সাথে সাথে খুব দ্রুত চরিয়ে পড়ছে মানবদেহে। প্রতিদিন ঘড়ে ২.৫ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে এই ভাইরাস। যেমন আজ ৪৮ জন আক্রান্ত হলে আগামী কাল ১২০ জন আক্রান্ত হওয়ার কথা। অন্যদিকে ঘর অনুপাত হিসেব করলে দেখা যায় ইতালি স্পেন আক্রান্তের দিক দিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ২.8 থেকে ৪.৮ শতাংশ এবং বাংলাদেশ মৃত্যুর ঘড় অনুপান ৮.৪৩ জন।
এই অবস্থায় কিভাবে বাংলাদেশ নিয়ন্ত্রণের দিকে সবার শীর্ষে। কিভাবে সর্বশেষ ৪৮ জনের মধ্যে আটকে আছে? কেন বৃদ্ধি পাচ্ছেনা আক্রান্তের সংখ্যা। নাকি বাংলাদেশে পৃথিবীর অন্যান্য দেশ থেকেও উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা রয়েছে।
নাকি কি আসল তথ্য গোপন করা হচ্ছে? প্রশ্ন থেকেই যায়।

আর যদি আসল তথ্য গোপন করা হয় তাহলে কি হতে পারে।
আমেরিকা প্রথম তাদের আক্রান্তের সংখ্যা গোপন রেখেছিল, বিশ্বকে বুঝাতে চাইছিল তারা সবার থেকে সুরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে, কিন্তু দিন দিন যখন তাদের অবস্থা ভয়ঙ্কর থেকে ভয়ঙ্কর দিকে পতিত হল। নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় ঠিক তখন তারা জানালো
We made a mistake by hiding information
আমরা তথ্য গোপন রেখে ভুল করেছি। দিন দিন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলছে আমাদের অবস্থা। তাই এখন পৃথিবীর সব থেকে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা আমেরিকায়।
প্রশ্ন থেকেই যায়।
তাহলে কি আমেরিকার পথে হাঁটছে বাংলাদেশ?
আর যদি তাই হয় একবার ভেবে দেখুনতো কি ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি অপেক্ষা করছে আমাদের সামনে।

হংকংয়ের শীর্ষ চিকিৎসা কর্মকর্তা হুশিয়ারি দিয়ে বলেন।
করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের পদ্ধতি কার্যকর না হলে এই প্রাণঘাতী রোগে আক্রান্ত হয়ে সাড়ে চার কোটি মানুষ মারা যেতে পারেন। আক্রান্ত হতে পারে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার অন্তত ৬০ শতাংশ। যদিও আক্রান্ত লোকের এক শতাংশও মারা যান, তবে সেই সংখ্যাও সাড়ে চার কোটি হবে।

বাংলাদেশে একবার এ ভাইরাস সংক্রমণ শুরু হলে সেটা ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়তে পারে যে কারণে সবাইকে সচেতন করা উচিৎ।

আতংক নয় সতর্কতার জন্য সবাইকে সঠিক নিউজ জানানো উচিৎ। অনেকে ভাবতে পারেন এতে আতংক সৃষ্টি হবে।
হ্যাঁ তা ঠিক তবে আতংক থেকে যদি সতর্কতা তৈরি হয় তাহলে আতংকই ভালো

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

More News Of This Category



Our Facebook Page


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু